Image

মেঘপাহাড়ের দেশে – মেরাইথং জাদি

মেঘপাহাড়ের দেশে – মেরাইথং জাদি

 

আমার বন্ধু মনির বলেছিলো, একটা পাহাড় আছে যেখানে মেঘের সাথে রাত্রীযাপন করা যায়। বন্ধু মহলে মনিরের একটা ভালো নাম ডাক আছে, কেউ কোথায় ঘুরতে গেলে মনিরের ডাক পড়ে কিভাবে যাবে কোথায় থাকবে পুরো বিস্তারিত পাওয়া যায় মনির থেকে। গত একবছর আগে মনের বায়নাটা শুরু, কিন্তু সুযোগ সুবিধা করতে পারছিলাম না কোনভাবে।

 

স্বপ্নটা মনির দেখিয়েছিলো কিন্তু বিধিবাম তাবু যোগাড় করতে পারি নাই তাই আর যাওয়া হয়ে উঠে নাই।

হঠাট করে সুযোগটা চলে আসে মেঘের সাথে রাত্রী যাপনের। মেরাইথং জাদি কেমন যেন মেরাথন মেরাথন গন্ধ, ব্যপারটাও তাই বিরামহীন পাহাড় যাত্রা করে ১৬৪০ ফীট উচুতে উঠে দেখবেন মেঘগুলো মেরাথন দৌড়ে ব্যস্ত। আমি এতোকাছ থেকে কখনো মেঘ দেখি নাই। আমরা পৌছাতে পৌছাতে সূর্য ডুবে যাচ্ছিলো এত কাছ সূর্যাস্তের খেলা, অন্ধাকারের মাঝে নিজেকে সপে দেওয়া এক অন্যন্যা ভালো লাগা কাজ করে।

যেভাবে যাবেন

 

ঢাকা/ চট্টগ্রাম থেকে চকরিয়া বাসস্ট্যান্ডে নেমে যেতে হবে, চান্দের গাড়িতে করে আলীকদম আবাসিক যাওয়ার পথে নেমে যেতে হবে ভাড়া পড়বে ৭০ টাকা। আবাসিকের বাজারে নেমে ডান পাশের রাস্তাটায় তিন ঘন্টা হাটলেই পৌছে যাবেন বান্দরবনের সবচেয়ে অবহেলিত পর্যটন উপজেলা আলীকদমের সবচেয়ে উচু পাহাড়ের চূড়া মেরাইথং জাদি। পানি এবং খাবারের কোন ব্যবস্থা না থাকায় পানি এবং শুকনো খাবার অথবা রান্নার প্রস্তুতি নিয়ে যেতে হবে।

  • : মেঘপাহাড়ের দেশে – মেরাইথং জাদি
  • :
  • : bandarban
  • : bus
  • : রাত্রীযাপনের জন্য তাবু নিয়ে যেতে হবে।
  • : শুকনো খাবার অথবা রান্না করার মতো প্রস্তুতি নিয়ে যেতে হবে।

0 comments

Leave a comment

Login To Comment